1. tipsmaster247@gmail.com : aman :
  2. spapon116@gmail.com : jamunar-barta :
  3. gm.amanullah2021@gmail.com : Md Murad : Md Murad
  4. mamunshekh432@gmail.com : reporter :
  5. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
সু*ন্দ*রী চা*চি*কে নি*য়ে উ*ধা*ও ভা*তি*জা! ল*জ্জা*য় এ*লাকা*য় মুখ দেখাতে পারচ্ছে না কাকা!
বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০৯:৩২ অপরাহ্ন

সু*ন্দ*রী চা*চি*কে নি*য়ে উ*ধা*ও ভা*তি*জা! ল*জ্জা*য় এ*লাকা*য় মুখ দেখাতে পারচ্ছে না কাকা!

Jamuna Desk Reporter
  • Update Time : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১
  • ৯৩ Time View

ঢাকার ধামর'াইয়ে চাচিকে নিয়ে ভাতিজা উধাও হয়ে গেছে। বি'ষয়টি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক তোলপাড় চলছে। ঘটনাটি

ঘটেছে সোমভাগ ইউনিয়নের ডাউটিয়া গ্রামে। ওই গ্রামের কাবিল উদ্দিনের ছেলে জুয়েল তার চাচা আলীমের স্ত্রী রুপালিকে নিয়ে পালিয়েছে বলে জানা গেছে। জানা গেছে, বিয়ের আগে থেকেই সম্পর্ক ছিল চাচার স্ত্রী রপালির সাথে

ভাতিজা জুয়েলের।চাচার সাথে বিয়ের সময় কোন আপ'ত্তি করেনি জুয়েল। বিয়ের পর তাদের কাছাকাছি দেখায় আরও প্রেমে মত্ত হন তারা। প্রেম মানে না কোন সর্ম্পক। তাই গত বুধবার দুজন দুজনার হাত ধরে অজানা উদ্দেশে পাড়ি জমান। ভাতিজা জুয়েলের বাবা কাবিল উদ্দিন বি'ষয়টিকে চরম ল'জ্জার সাথে দেখছেন বলে জানান।

আরো পড়ুন: ভিয়েতনামকে টপকে নতুন মাইলফলকে বাংলাদেশ! করো’নার কারণে এলোমেলো সারাবিশ্ব। যার সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়েছে অর্থনীতিতে। সেই করো’নাকালীন আবহের মাঝেই তৈরি পোশাক খাতে ভি’য়েতনামকে পেছনে

ফেলল বাংলাদেশ। জাতিসং'ঘ ও বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার অ'ঙ্গ সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ট্রে'ড সেন্টার আইটিসির সর্বশেষ এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। দেখা যায়, ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত এই ১২ মাসে পোশাকের বিশ্ববাজারে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশ

ভিয়েতনাম রফতানি করেছে ২৭ দশমিক ৫৭ বিলিয়ন ডলার আর বাংলাদেশ করেছে ২৯ দশমিক ২৩ বিলিয়ন ডলারের পোশাক। অর্থাৎ পোশাক রফতানি করে ভি’য়েতনামের চেয়ে ১ দশমিক ৬৬ বিলিয়ন ডলার বেশি আয় করেছে বাংলাদেশ। অথচ ২০১৯ সালের জুলাই থেকে ২০২০ সালের মে পর্যন্ত ১১ মাসে বাংলাদেশের চেয়ে ভিয়েতনামের আয় ২ দশমিক ৫৫ বিলিয়ন ডলার বেশি ছিল। ওই সময়ে তৈরি পোশাক থেকে বাংলাদেশের রফতানি আয় ছিল ২৫ দশমিক ৭১ বিলিয়ন ডলার আর ভিয়েতনামের ছিল ২৮ দশমিক ২৬ বিলিয়ন ডলার।

তৈরি পোশাক প্রস্তুতকারক ও রফতানিকারকরা বলছেন, করো’নাকালে সরকারের দেয়া প্রণো’দনা এই খাতের ঘুরে দাঁড়াতে বেশ বড় ভূমিকা রেখেছে। তবে করো’নার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলা করে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে আরও নীতি ও অর্থ সহায়তা দরকার বলে জানান তৈরি পোশাক প্রস্তুত’কারক ও রফতানিকারকদের শীর্ষ সংগঠন বিজিএমইএর সাবেক সহসভাপতি মোহা'ম্ম'দ নাসির। বিজিএমইএ’র তথ্য মতে, ২০২০ সালের প্রথম পাঁচ মাসে

(জানুয়ারি থেকে মে পর্যন্ত সময়) বিশ্ববাজারে ৯৬৮ কোটি ৪৯ লাখ ডলারের তৈরি পোশাক র'প্তানি করে বাংলাদশ। একই সময়ে ভিয়েতনাম র'প্তানি করে ১ হাজার ৫০ কোটি ৯১ ডলারের তৈরি পোশাক। অর্থাৎ গত বছরের প্রথম পাঁচ মাসে বাংলাদেশের চেয়ে ৮২ কোটি ডলারের পোশাক র'প্তানি বেশি করেছিল ভিয়েতনাম।জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে ভিয়েত’নামের চেয়ে বাংলাদেশ বেশি পোশাক র'প্তানি করলেও মা'র্চ থেকে এগিয়ে যায় ভিয়েতনাম।

জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ ভিয়েতনামের চেয়ে ১১২ কোটি ডলারের বেশি তৈরি পোশাক পণ্য র'প্তানি করে। মা'র্চে বাংলাদেশ ২২৬ কোটি ডলারের পোশাক পণ্য র'প্তানি করে, যেখানে একই মাসে ভিয়েতনাম করে ২৩৪ কোটি ডলারের পণ্য র'প্তানি।এপ্রিলে বাংলাদেশ ৩৭ কোটি ডলার আর ভিয়েতনাম করে ১৬১ কোটি ডলারের পণ্য র'প্তানি করে। আর মে মাসে বাংলাদেশ ১২৩ কোটি ডলারের পোশাক পণ্য র'প্তানি করে যেখানে একই মাসে

ভিয়েতনাম র'প্তানি করেছে ১৮৬ কোটি ডলারের পোশাক পণ্য।বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার (ডব্লিউটিও) মতে, বিশ্ব বাজারে তৈরি পোশাক র'প্তানিতে বাংলাদেশের হিস্যা ৬ দশমিক ৮ শতাংশ আর ভিয়েতসামের ৬ দশমিক ২ শতাংশ। আর ৩০ দশমিক ৮ শতাংশ নিয়ে শীর্ষ অবস্থানে চীন।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
Jamunabarta24 © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz