1. bappy.ador@yahoo.com : Admin : Admin admin
  2. hostctg@gmail.com : desk report :
  3. sohagkhan8933@gmail.com : editor editor : editor editor
  4. spapon116@gmail.com : jamunar-barta :
  5. mamunshekh432@gmail.com : reporter :
  6. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
স্বা*মী প্র*বা*সে থা*কা*য় ভা*গি*নাকে বি*য়ে স্কু*ল শি*ক্ষি*কা*র
শুক্রবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:০৭ অপরাহ্ন

স্বা*মী প্র*বা*সে থা*কা*য় ভা*গি*নাকে বি*য়ে স্কু*ল শি*ক্ষি*কা*র

Jamuna Desk Reporter
  • Update Time : রবিবার, ৭ মার্চ, ২০২১
  • ২৬৯ Time View

কক্সবাজারের রামুতে বিয়ে কার্যকর থাকার পরও স্বামীর ভাগিনাকে বিয়ে এবং স্ট্যাম্প জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া তালাকনামা সম্পাদনের মা'মলায় স্কুলশিক্ষিকা শামীমা আক্তারের বিরু'দ্ধে গ্রে'ফতারি পরোয়ানা জারি করেছে আ'দালত।

শামীমা আক্তার রামুর জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের ঘোনারপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা এবং পেকুয়া উপজে'লার পূর্ব গোয়াখালী এলাকার জাফর আহম'দের মেয়ে।

জানা গেছে, দ্বিতীয় বিয়ে কার্যকর থাকার পরও স্বামীর ভাগিনাকে বিয়ে এবং স্ট্যাম্প জালিয়াতির মাধ্যমে ভুয়া তালাকনামা সম্পাদনের অ'ভিযোগে শিক্ষিকা শামীমা আক্তারের বিরু'দ্ধে মা'মলা করেন দ্বিতীয় স্বামী চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজে'লার দক্ষিণ জলদি গ্রামের বাসিন্দা র'শিদ আহম'দ।

গত ১০ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট, আমলি আ'দালত-০২ এ মা'মলা (নং ১৪৯৫/২০২০) দায়ের করা হয়। আ'দালতের নির্দেশে পিবিআই চট্টগ্রাম মেট্রো এর ওসি ইখতিয়ার উদ্দিন গত ১০ নভেম্বর মা'মলার ত'দন্ত প্রতিবেদন দেন।

এতে বিয়ে কার্যকর থাকার পরও স্বামীর ভাগিনাকে বিয়ে করা এবং স্ট্যাম্প জালিয়াতির সত্যতা পাওয়ায় মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হোসেন মোহা'ম্ম'দ রেজা গত ২২ ডিসেম্বর শামীমা আক্তারের বিরু'দ্ধে গ্রে'ফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

মা'মলার ত'দন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে, তিনবার বিয়ে বন্ধনে আব'দ্ধ হয়েছেন শামীমা আক্তার। অ'ভিযুক্ত শামীমা আকতার ২০০৯ সালে রাশেদুল ইসলাম নামে যুবককে বিয়ে করেন।

ওই সংসারে জমজ কন্যা সন্তান থাকা সত্ত্বেও পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে ২০১২ সালের ১৩ ফেব্রুয়ারি তাদের বিচ্ছেদ হয়। ২০১৪ সালের ১৪ নভেম্বর দ্বিতীয়বারের মতো র'শিদ আহম'দকে বিয়ে করেন তিনি। কর্মস্থল রামুতে হওয়ায় সেখানে ভাড়া বাসা নিয়ে স্বামী-স্ত্রী বসবাস শুরু করেন।

একপর্যায়ে র'শিদ আহম'দ প্রবাসে চলে যান। প্রবাস থেকে আসা যাওয়ায় তাদের সংসার ঠিকঠাক চলছিল। র'শিদ আহম'দ তার স্ত্রী শামীমা'র নামে কক্সবাজারের ঝিলংজায় জমিও ক্রয় করেন। এছাড়া বিভিন্ন অজুহাতে স্বামীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকাও হাতিয়ে নিতেন। র'শিদ আহম'দ প্রবাসে থাকাকালে জরুরি প্রয়োজনে শামীমা'র দেখাশোনা করতেন তার ভাগিনা জাকির হোসেন।দেখাশোনার একপর্যায়ে র'শিদের ভাগিনা জাকিরের স'ঙ্গে অবৈ'ধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন শামীমা।

জাকির হোসেন চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজে'লার জলদি র'ঙ্গিয়াঘোনা এলাকার মোস্তাক আহম'দের ছেলে।ত'দন্ত প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, দ্বিতীয় স্বামী র'শিদ আহম'দের বিয়ে বৈধ থাকার পরও ২০১৭ সালের ৬ জানুয়ারি শামীমা জাকির হোসেনকে বিয়ে করেন। শামীমা এবং তার তৃতীয় স্বামী জাকির উভয়ে তাদের বিয়ে বৈধ করার লক্ষ্যে একটি ভুয়া তালাকনামা সৃজন করে।ওই তালাকমানায় ব্যবহৃত দুটি ১০০ টাকার স্ট্যাম্পে তালাকের তারিখ উল্লেখ করা হয়েছে ২০১৬ সালের ২০ সেপ্টেম্বর।

বাদী র'শিদ আহম'দ বি'ষয়টি সন্দে'হজনক মনে করে চট্টগ্রাম ট্রেজারি অফিসে সন্ধান চেয়ে জানতে পারেন,স্ট্যাম্প দুটি চট্টগ্রাম ট্রেজারি থেকে সরবরাহ করা হয়েছে ২০১৭ সালের ২০ জুন। অর্থাৎ স্ট্যাম্প সৃষ্টি বা বাজারে আসার আগেই তালাকনামা সৃষ্টি করা হয়েছে। যা প্রতারণামূলক এবং উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। এরই প্রেক্ষিতে আ'দালত শামীমা'র বিরু'দ্ধে গ্রে'ফতারি পরোয়ানা জারি করে।এছাড়াও ত'দন্ত প্রতিবেদনে আরো উল্লেখ করা হয়েছে- শামীমা আক্তার দ্বিতীয় স্বামী র'শিদ আহম'দের কাছ থেকে কৌশলে নগদ ও বিকাশের মাধ্যমে বিপুল টাকা গ্রহণ করতেন।

যা এরআগে দায়েরকৃত সিআর মা'মলার (নং ৯৭/২০১৯) প্রেক্ষিতে সিআইডি’র দেয়া ত'দন্ত প্রতিবেদনে প্রমাণিত হয়েছে। মা'মলার বাদী র'শিদ আহম'দ জানিয়েছেন, শামীমা আক্তারের ফাঁ'দে পড়ে অনেক পুরুষ নিঃস্ব হয়েছেন। বিয়ের নামে তিনি তার কাছ থেকে জমি, বিপুল অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন। সর্বশেষ তার আপন ভাগিনাকে বিয়ে করায় তিনি সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন হচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
Jamunabarta24 © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz