1. bappy.ador@yahoo.com : Admin : Admin admin
  2. hostctg@gmail.com : desk report :
  3. sohagkhan8933@gmail.com : editor editor : editor editor
  4. spapon116@gmail.com : jamunar-barta :
  5. mamunshekh432@gmail.com : reporter :
  6. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
সি'সিটি'ভি ফু'টেজ মি'লেছে চু'ল কা'টা'র প্র'মা'ণ, যা বলছে ত'দ'ন্ত ক'মি'টি
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন

সি’সিটি’ভি ফু’টেজ মি’লেছে চু’ল কা’টা’র প্র’মা’ণ, যা বলছে ত’দ’ন্ত ক’মি’টি

Jamuna Desk Reporter
  • Update Time : শুক্রবার, ১ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৯৩ Time View

সিরাজগঞ্জের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে মিলেছে চুল কা'টার প্রমাণ সিসিটিভি ফুটেজ। চলছে তোলপাড়।

অ'ভিযুক্ত শিক্ষক এ ঘটনার দায় অস্বীকার করলেও ক্যাম্পাসের সিসিটিভি ফুটেজে ঘটনার সময় তাকে কাঁচি হাতে দেখা যায়। এছাড়া পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের দেখা যায় কা'টা চুল তুলে নিয়ে যাচ্ছেন।এ ঘটনায় লায়লা ফেরদৌস হিমেলকে প্রধান করে পাঁচ সদস্যবিশিষ্ট একটি ত'দন্ত কমিটি গ্রঠন করা হয়েছে। অনশনরত শিক্ষার্থী ও নি'র্যাতনের শিকার শিক্ষার্থী সিরাত বলেন, দাবি না মানা পর্যন্ত তাদের আমর'ণ অনশন চলবে।

এই মুহূর্তে অন্তত ১৫ শিক্ষার্থী অনশনে রয়েছেন। আ'হত শিক্ষার্থীকে দেখভালের বি'ষয়ে সিরাত বলেন, আমর'া তাদের দেখভাল চাই না।আমর'া চাই নিপীড়ক ওই শিক্ষকের অব্য'হতি। তা না করে, প্রশাসন অযথা সময়'ক্ষেপন করছে বলেও অ'ভিযোগ তার। প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনশনরত শিক্ষার্থীদের সাথে কোনোরকম যোগাযোগও করা হয়নি, এমনকি দেয়া হয়নি কোনো আশ্বা'সও।

লায়লা ফেরদৌস জানান, সিসিটিভি ফুটেজটি তাদের হাতে পৌঁছেছে। এছাড়া ঘটনার সময় পরীক্ষার হলে কর্তব্যরত অন্য দুজন শিক্ষকও এই অ'ভিযোগের পক্ষে বিবৃতি দিয়েছেন। প্রত্যক্ষদর্শী একাধিক শিক্ষার্থীসহ অফিস স্টাফরাও শিক্ষার্থীদের অ'ভিযোগের পক্ষে বক্তব্য দিয়েছেন। তারপরও অ'ভিযুক্ত শিক্ষক অস্বীকার করায় এই সিসিটিভি পর্যন্ত অ'পেক্ষা করতে হয়েছে।

এ ব্যাপারে শিক্ষার্থীদের দাবি অনুযায়ী তাকে অব্য'হতি দেয়া হবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে লায়লা ফেরদৌস বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়টিতে যে উপাচার্য আছেন, তিনি ভারপ্রা'প্ত। তিনি এ ধরনের সি'দ্ধান্ত নেয়ার এখতিয়ার রাখেন কিনা, তা নিশ্চিত না। তাছাড়া ঘটনাটি এখন রাষ্ট্রীয় আইনের আওতায় চলে গেছে, সেখানে এর উপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি। ত'দন্ত কমিটির প্রতিবেদন এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

তবে আজ একটি সভা হওয়ার কথা রয়েছে। সভায় এ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। যে শিক্ষার্থী চুল কা'টার ঘটনায় আ'ত্মহ'ত্যাচেষ্টা করেছিলেন। তিনি এখন আশঙ্কামুক্ত রয়েছেন। ত'দন্ত কমিটিসহ প্রশাসন আন্তরিকতার সাথে তার দেখভাল করেছে। আ'হত ওই শিক্ষার্থীর চিকিৎসার প্রাথমিক ব্যয়ও বিশ্ববিদ্যালয় বহন করছে বলে জানান ত'দন্ত কমিটির প্রধান ও বিশ্ববিদ্যালয়টির একজন শিক্ষক লায়লা ফেরদৌস।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
Jamunabarta24 © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz