1. bappy.ador@yahoo.com : Admin : Admin admin
  2. hostctg@gmail.com : desk report :
  3. sohagkhan8933@gmail.com : editor editor : editor editor
  4. spapon116@gmail.com : jamunar-barta :
  5. mamunshekh432@gmail.com : reporter :
  6. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
ঢাকায় অনেক মেয়ে দিনে ঘুমায়, রাতে টাকাওয়ালা ছেলে নিয়ে পার্টি করেন
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০২:১৯ পূর্বাহ্ন

ঢাকায় অনেক মেয়ে দিনে ঘুমায়, রাতে টাকাওয়ালা ছেলে নিয়ে পার্টি করেন

Jamuna Desk Reporter
  • Update Time : রবিবার, ৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৯২ Time View

ঢাকা মহানগর পু'লিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মোহা'ম্ম'দ হারুন অর রশীদ বলেছেন, চাঞ্চল্যকর ঘটনা রাজধানীর ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব') শিক্ষার্থীকে ধ'র্ষণ ও হ'ত্যার ঘটনায় করা মা'মলার অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা গেছে,

ঢাকা শহরের অনেক মেয়েরা সারাদিন ঘু'মায় আর রাতে সেজে টাকাওয়ালা ছেলেদের বিভিন্ন লাইসেন্সবিহীন রেস্টুরেন্টে নিয়ে যায়। ডিজে পার্টির নামে সেখানে তারা ম'দ পার্টি করেন। পরে নাচানাচি করে ভোর বেলায় চলে যান।

তিনি বলেন, সম্প্রতি উত্তরার ব্যাম্বু সুট রেস্টুরেন্টে এরই ধা'রাবাহিকতায় আরাফাত ম'দ খেয়ে মা'রা গেছেন আর ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব') ছাত্রী মাধুরী অতিরিক্ত ম'দপানে অসুস্থ হয়েছেন পরে মা'রা গেছেন।

আর এ ঘটনায় মাধুরীকে ধ'র্ষণ ও হ'ত্যার ঘটনায় তার বাবার করা মা'মলায় মাধুরীর বান্ধবী ফারজানা জামান নেহাও রি'মান্ডে স্বীকার করেছেন তিনিও ম'দপানে অসুস্থ হয়েছিলেন দুই দিন চিকিৎসাও নিয়েছেন। শনিবার তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মোহা'ম্ম'দ হারুন অর রশীদ কার কার্যালয়ে এসব কথা বলেন।

এক প্রশ্নে জবাবে মোহা'ম্ম'দ হারুন অর রশীদ বলেন, সমাজে বিচ্ছিন'্নতার কারণে এইসব ঘটনা ঘটছে। দেখা গেছে অনেকে পরিবারে বাবা-মায়ের মিল নেই। আর এর ফলে ছেলে-মেয়েদের মধ্যে বাজে প্রভাব পড়ছে।

তারা বাইরে গিয়ে নে'শা করছেন। ম'দ খাচ্ছেন। এতে অনেকে বি'ষাক্ত ম'দ খেয়ে অসুস্থ হচ্ছেন বা মা'রা যাচ্ছেন। এখন আমা'দের কাজ হচ্ছে এই ধরণের ম'দ যারা বিক্রি করছেন তাদের বিরু'দ্ধে ব্যবস্থা নেয়া। আমা'দের অ'ভিযান চলছে। যারা ডিজে পার্টি, ম'দ পার্টির আয়োজক, যারা ম'দ বহন করে পৌঁছে দেয় তাদের আমর'া খুঁজে বের করছি।

পু'লিশের এই কর্মকর্তা বলেন, মাধুরীর বাবার করা মা'মলায় প্রত্যেক আ'সামিকে আমর'া গ্রে''প্তার করেছি। এছাড়া আরও যদি কেউ জড়িত থাকে তাদেরও গ্রে''প্তার করব।

তিনি বলেন, আমর'া দেখেছি ঢাকায় স'প্তাহে তিনদিন বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার রাতে বাসা বা বিভিন্ন হোটেলে ডিজে পার্টির নামে অরাজকতা ছড়িয়ে পরে।

আরাফাত যে মা'রা গেলেন ওই রাতে গু'লশানে আরও একটি হোটেলে তিনি পার্টি করেছেন। আবার সেখান থেকে পার্টি করে তার এক গ্রুপ গেছে মাওয়াতে। সেখান থেকে ফিরে এসে অসুস্থ হয়েছেন।ডিসি হারুন বলেন, সেই রাতে রায়হান মাধুরীকে নিয়ে মোহা'ম্ম'দপুরে একটি বাসায় আসেন। রি'মান্ডে রায়হান স্বীকার করেছেন তার স'ঙ্গে মাধুরীর শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে ওই রাতে। পরে অসুস্থ হলে তাকে ইবনে সিনা এরপর আনোয়ার খান হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানে তার মৃ'ত্যু হয়। তার প্রকৃত মৃ'ত্যুর কারণ রিপোর্ট না আসলে বলা যাচ্ছে না। তবে আমর'া মনে করছি এবং রি'মান্ডের থাকা তিনজনের কথা বলে যেটা জানা গেছে ম'দপানে অসুস্থ হয়ে মৃ'ত্যুটাই মূল কারণ 'হতে পারে।নেহা সম্পর্কে তিনি বলেন, নেহা প্রতি রাতে ডিজে পার্টি করেন। সারা রাত বাইরে থাকেন। এই ডিজে পার্টির আড়ালে অন্য কোনও ব্যবসা আছে কিনা অথবা তার অন্য কোন পেশা কী, তার ইনকাম সোর্স কী, তার স'ঙ্গে কাদের সম্পর্ক আছে এসব নিয়ে ত'দন্ত করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ইউল্যাব' শিক্ষার্থীকে ওই ছাত্রীকে ধ'র্ষণ ও হ'ত্যার ঘটনায় করা মা'মলায় গত ৩১ জানুয়ারি তার দুই বন্ধু মুর্তজা রায়হান চৌধুরী (২১) ও নুহাত আলম তাফসীরের (২১) পাঁচ দিন করে রি'মান্ড মঞ্জুর করেন আ'দালত। ওই দিনই ৪ জনকে আ'সামি করে রাজধানীর মোহা'ম্ম'দপুর থানায় মা'মলা দায়ের করেছিলেন নি'হত তরুণীর বাবা। মা'মলায় অজ্ঞাতনামা আরও একজনকে আ'সামি করা হয়।মা'মলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত ২৮ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় মর'্তুজা রায়হান ওই তরুণীকে নিয়ে মিরপুর থেকে আরাফাতের বাসায় যান।

সেখানে স্কুটার রেখে আরাফাত, ওই তরুণী এবং রায়হান একস'ঙ্গে উত্তরা ৩ নম্বর সেক্টরের ব্যাম্বু সুট রেস্টুরেন্টে যান। সেখানে আগে থেকেই আরেক আ'সামি নেহা এবং একজন সহপাঠী উপস্থিত ছিলেন। সেখানে আ'সামিরা ওই তরুণীকে জোর করে ‘অধিক মাত্রায়’ ম'দপান করান। ম'দপানের একপর্যায়ে ভুক্তভোগী তরুণী অসুস্থ বোধ করলে রায়হান তাকে মোহা'ম্ম'দপুরে তার এক বান্ধবীর বাসায় পৌঁছে দেয়ার কথা বলে নুহাতের বাসায় নিয়ে যান। সেখানে তরুণীকে ধ'র্ষণ করেন রায়হান। এ সময় রায়হানের বন্ধুরাও রুমে ছিলেন।

ধ'র্ষণের পর রাতে ওই তরুণী অসুস্থ হয়ে বমি করলে রায়হান তার আরেক বন্ধু অসিম খান কোকোকে ফোন দেন। সেই বন্ধু পরদিন এসে তরুণীকে প্রথমে ইবনে সিনা ও পরে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন। দুই দিন লাইফ সা'পোর্টে থাকার পর তার মৃ'ত্যু হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
Jamunabarta24 © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz