1. bappy.ador@yahoo.com : Admin : Admin admin
  2. hostctg@gmail.com : desk report :
  3. spapon116@gmail.com : jamunar-barta :
  4. mamunshekh432@gmail.com : reporter :
  5. sawontheboss4@gmail.com : Toufiq Hassan : Toufiq Hassan
ব্রেকিং নিউজ : মাত্র ৩৫ হাজার টাকায় বাজারে এলো নতুন বাইক,চলবে ১৫১ কিমি
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৭ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ : মাত্র ৩৫ হাজার টাকায় বাজারে এলো নতুন বাইক,চলবে ১৫১ কিমি

Jamuna Desk Reporter
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২২
  • ১১৭ Time View

সারা বিশ্বের মতোই এখন ভারতেও বৈদ্যুতিক গাড়ির ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। এই জনপ্রিয়তার ওপর ভিত্তি করেই বিভিন্ন কোম্পানি বর্তমানে বাজারে নতুন নতুন বৈদ্যুতিক গাড়ি নিয়ে আসছে।সারা বিশ্বের মতোই এখন ভারতেও বৈদ্যুতিক গাড়ির ক্রমবর্ধমান জনপ্রিয়তা বেড়েই চলেছে। এই জনপ্রিয়তার ওপর ভিত্তি করেই বিভিন্ন কোম্পানি বর্তমানে বাজারে নতুন নতুন বৈদ্যুতিক গাড়ি নিয়ে আসছে।

বৈদ্যুতিক গাড়ির জনপ্রিয়তার সবচেয়ে বড় কারণ হল এগু'’লি পরিবেশকে দূষণের হাত থেকে রক্ষা করতে সক্ষম। সেই স’'ঙ্গে পেট্রোল ও ডিজে’লের ক্রমবর্ধমান দামও তাদের দ্রুত গ্রহণযোগ্যতা বেড়ে ওঠার একটি বড় কারণ। তবে এখন আপনি চাইলে আপনার আগে থেকে কেনা কোনও গাড়িকেও বৈদ্যুতিক বাহনে পরিণত করতে পারেন।

শুনতে আশ্চর্য লাগলেও এটি আলহন সম্ভব। এর জন্য এখন আপনার প্রয়োজন শুধুমাত্র একটি “ইভি কিট”-এর। যেখানে একটি কনভার্সন কিট জ্বা'’লানি চালিত ইঞ্জিনের পরিবর্তে ইনস্টল করা থাকবে।

গাড়ির জন্য ইভি রূপান্তর কিট কয়েক স’'প্তাহ আগেই চালু হয়েছে। ভারতে নভেম্বর থেকেই মোটরসাইকেলকে বৈদ্যুতিক যানে রূপান্তর করার প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছিল। থানে-ভিত্তিক ইভি স্টার্টআপ “Gogoe1” একটি মোটরসাইকেলের জন্য এই ধরনের “ইভি রূপান্তর কিট” RTO-এর অনুমোদন সহ সর্বপ্রথম ব্যবহার করে দেখিয়েছে।

আপনি যদি আপনার পুরোনো মোটরসাইকেলটিকে বৈদ্যুতিক বানাতে চান, তাহলে আপনাকে মোটামুটি ৩৫,০০০ টাকা খরচ করতে হবে এবং তার সাথে GST বাবদ আরও ৬৩০০ টাকা আপনাকে দিতে হবে। ৩ বছরের ওয়ারেন্টি সহ আপনি এই কিটটি পাবেন। এছাড়াও, যদি আপনাকে আপনার মোটরসাইকেলের রেঞ্জ প্রতি চার্জে ১৫১ কিমি যাত্রা করার সুবিধা পেতে হয়, তাহলে আপনাকে পুরো ব্যাটারি প্যাকের জন্য খরচ করতে হবে ৯৫,০০০ টাকা।

Gogoa1 সারা দেশে মোট ৩৬ টি আরটিওতে ইনস্টলেশন প্রক্রিয়ার যন্ত্রপাতির ব্যবস্থা করেছে এবং এই সংখ্যাটি শীঘ্রই আরও বাড়তে চলেছে। যেহেতু প্রক্রিয়াটি RTO-র অনুমোদন পেয়েছে, তাই বাইকটিকে আপনি বীমাও করাতে পারবেন এবং নতুন সবুজ নম্বর প্লেট পাবেন। সর্বপ্রথম একটি হিরো স্প্লেন্ডার বাইককে এই বৈদ্যুতিক অবতারে পরিবর্তন করা হয়েছে।

বাজাজ পালসার থেকে নেওয়া ব্রেক হিরো স্প্লেন্ডারটিতে বসানো হয়েছে। এই বৈদ্যুতিক স্প্লেন্ডারের শক্তি ২.৪ Bhp শক্তি এবং ৬৩ Nm পিক টর্ক এবং প্রয়োজনে তা বাড়ানো যেতে পারে। এতে রিজেনারেটিভ ব্রেকিং টেকনোলজিও দেওয়া হয়েছে, যার কারণে এর ব্যাটারি ৫-২০ শতাংশ পর্যন্ত চার্জ ব্যবহার করে।

Please Share This Post in Your Social Media

Comments are closed.

More News Of This Category
Jamunabarta24 © All rights reserved 2021
Develper By ITSadik.Xyz